সর্বশেষ সংবাদ:
ই-পাসপোর্ট পেতে সুনামগঞ্জবাসীকে অপেক্ষা করতে হবে আরও ৬/৭ মাস মাটির তলটারে ভয় পাই : শামীম ওসমান গোপালগঞ্জে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ২ কাতারের নতুন প্রধানমন্ত্রী শেখ খালিদ একদিনে মৌলভীবাজারে ৭ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু জামায়াতের প্রোডাক্ট আযহারী : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দেশসেরা প্রতিবেদকের পুরস্কার নিলেন সাংবাদিক মবরুর সাজু সিলেট ট্রাক্টর উল্টে চালক নিহত মৌলভীবাজারে অগ্নিকাণ্ডে ৫ জন নিহত : আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাদেলের শোক ক্বাদিয়ানীরা কোনভাবেই মুসলিম নয় : ইউরোপ জমিয়ত তাপসের নির্বাচনী ক‌্যাম্প পুড়িয়ে দিলো দুর্বৃত্তরা সুনামগঞ্জের দুটি সহ একনেকে ৯ প্রকল্প অনুমোদন ইশরাকের ১৩ দফা ইশতেহার ও ১৪৪ প্রতিশ্রুতি ঘোষণা মৌলভীবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের ৫ জন নিহত হবিগঞ্জে গাড়িচাপায় দুই অটোরিকশা চালক নিহত যুক্তরাষ্ট্রে ৩৫টি নৌকায় আগুন, নিহত ৮ মৌলভীবাজারে পিকআপচাপায় আহত ৪, নিহত ২ রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের পরিচালক মনোনীত চপল ৪৫০ কোটি টাকা ভারতে পাচার: ওসির বিরুদ্ধে তদন্তে দুদক ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল সিলেট, কয়েকটি ভবনে ফাটল

প্রেমিকের হাত ধরে উধাও হওয়া মাকে ফেরাতে মেয়ের সংবাদ সম্মেলন

হাওরবাংলা ডেস্ক:: টাঙ্গাইলে পরকীয়া প্রেমিকের হাত ধরে উধাও হওয়া স্কুলশিক্ষিকা মোছা. শাহনাজ আক্তারকে (৩৩) ফিরে পেতে সংবাদ সম্মেলন করেছে মেয়ে মাইমুনা আক্তার তানহা (১৩)।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এ সময় তানহার বাবা সুলতান মাহমুদও উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement

সংবাদ সম্মেলনে স্কুলছাত্রী মাইমুনা আক্তার তানহা বলে, আমি একজন নাবালিকা। আমার মা মোছা. শাহনাজ আক্তার বাসাইল উপজেলার বর্ণি কিশোরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা। আমার বাবা প্রবাসে থাকার সময় আমার মায়ের পূবালী ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে ৫৮ লাখ ৯৩ হাজার ৭৭২ টাকা পাঠিয়েছেন। এ ছাড়া মাকে বাবা বিভিন্ন সময়ে সর্বমোট ১৬ ভরি স্বর্ণালংকার ও সখীপুর মৌজায় জমি কিনে দিয়েছেন। আমার নানার বাড়িতে দুটি টিনের ঘরও নির্মাণ করে দেন।

আমার বাবা বিদেশে থাকা অবস্থায় টাঙ্গাইল সদর উপজেলার চরদিঘুলিয়া গ্রামের হাসান মাস্টারের ছেলে মনিরুজ্জামান মামুনের (মাসুম) সঙ্গে আমার মায়ের পরকীয়া সম্পর্ক হয়। পরে সেই বিষয়টি আমি জানার পর মাকে ওই সম্পর্ক থেকে বিরত থাকতে বললে একাধিকবার আমাকে মারধর করে।

Advertisement

ওই শিক্ষার্থী আরও বলে, গত ৮ নভেম্বর আমার মা ২০ লাখ টাকা ও ১৬ ভরি স্বর্ণ নিয়ে এবং আমার ছোট ভাই আড়াই বছরের আদিল আহানাফকে নিয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। আমি ও আমার বাবা বিভিন্ন এলাকা এবং আত্মীয়ের মাধ্যমে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি মা মনিরুজ্জামানের মামুনের সঙ্গে পালিয়ে গেছে। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করার পর থেকে মনিরুজ্জামান মামুন বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মাধ্যমে আমাদের হুমকি, ধামকি দিয়ে আসছে। আমি মামুনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

এছাড়া আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আমার মাকে আমি ফিরে পেতে চাই। মাকে নিয়ে আগের মতো আমরা সুখের সংসার করতে চাই।

এদিকে বিষয়টি টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখীপুর) আসনের এমপি জোয়াহেরুল ইসলাম, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বাসাইলের ইউএনও, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি, ৩০ নম্বর বর্ণি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরাবর আবেদন করেও কোনো সমাধান হয়নি। পরবর্তীতে বাবা বাদি হয়ে টাঙ্গাইল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বাসাইল থানা আমলি আদালতে মামলা দায়ের করেন বলেও জানায় মাইমুনা আক্তার তানহা।

Advertisement

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

এ জাতীয় আরও সংবাদ 👇


Facebook Page


Scroll Up