মসজিদে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, ইমাম আটক

হাওরবাংলা ডেস্ক:: মসজিদে পবিত্র কোরআন শরীফ শিখতে গিয়ে মাদারীপুরে পঞ্চম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী ইমামের হাতে ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় ওই ইমামকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) রাতে এ ঘটনায় নির্যাতিতা শিশুটির বাবা বাদি হয়ে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন।

Advertisement

অভিযুক্ত ইমাম মেহেদী হাসান মোল্লা বাগেরহাট জেলার রায়েন্দা থানার রাজাপুর গ্রামের আঃ জব্বার মোল্লার ছেলে। তিনি দীর্ঘ ১২ বছর ধরে মাদারীপুর সদর উপজেলার পেয়ারপুর ইউনিয়নের কুমড়াখালি এলাকার জবান খাঁন জামে মসজিদে ইমাম হিসেবে নিয়োজিত রয়েছেন।

জানা গেছে, শিশুটি স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। প্রতিদিন ভোরে এলাকার অন্য শিশুদের সঙ্গে সে গ্রামের মসজিদে পবিত্র কোরআন শিখতে যায়। গত ১২ অক্টোবর অন্য শিশুদের সবাইকে ছুটি দিলেও ওই শিশুটিকে ইমাম ঝাড়ু দেওয়ার কথা বলে তার থাকার ঘর নিয়ে যায়। এরপর ঘরের দরজা বন্ধ করে মেহেদী শিশুটিকে ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে গত ১৫ অক্টোবর একইভাবে শিশুটিকে পুণরায় ধর্ষণ করে মেহেদী। কিন্তু ইমাম বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখানোর কারণে শিশুটি এ বিষয়ে কাউকে কিছু বলেনি।

Advertisement

গত মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) দুপুরে মেয়েটি স্কুলে গিয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে শিক্ষকরা তার পরিবারের সদস্যদের খবর দিলে তারা এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যায়। বাড়িতে গিয়ে শিশুটির নানির কাছে সে সবকিছু বলে দেয়। পরে এলাকাবাসী ইমাম মেহেদি হাসান মোল্লাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সওগাতুল আলম জানান, এ ঘটনায় শিশুটির বাবা থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এছাড়া অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। বুধবার (৬ নভেম্বর) সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে।

Advertisement

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

এ জাতীয় আরও সংবাদ 👇



বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৪৭,১৫৩
সুস্থ
৯,৭৮১
মৃত্যু
৬৫০

বিশ্বে

আক্রান্ত
৬,২৪৭,৮৮৯
সুস্থ
২,৭৮২,৪১১
মৃত্যু
৩৭৩,৩৯৮



Facebook Page


Scroll Up