সর্বশেষ সংবাদ:
জগন্নাথপুরে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে বাড়ি বাড়ি গেলেন শাহ্ নুরুল করিম সংসদীয় এলাকায় ১০ হাজার মাস্ক, গ্লাভস ও সাবান দিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী জগন্নাথপুরে করোনা পরিস্থিতির মধ্যে বিয়ের আয়োজন, ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা জগন্নাথপুরে অসহায়দের পাশে একতা শিক্ষানুরাগী যুব সংঘ ওসমানীনগরে দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে শিক্ষক পরিবার হাসপাতাল-ক্লিনিক-চেম্বার বন্ধ থাকলে ব্যবস্থা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা সংকটেও মতলববাজরা সক্রিয়, সতর্ক থাকার আহ্বান কাদেরের হোম কোয়ারেন্টিন শেষ হতেই অসহায় মানুষের পাশে লুৎফুর মিয়া কোভিড-১৯ পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ দফা নির্দেশনাগুলো কি ছিল ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিলেন ছাত্রলীগ নেতা বাড়িভাড়া ও ব্যাংক লোন-সংক্রান্ত প্রচারটি গুজব কালবৈশাখী ঝড়ে কিশোরীর মৃত্যু, ২ বোন আহত শ্রমজীবীদের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ করলেন শংকর চন্দ্র দাস দায়িত্ব পালনের সময় মাস্ক পরার নির্দেশনা প্রধানমন্ত্রীর যুক্তরাজ্যে করোনায় ২৪ ঘন্টায় ৫৬৯ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৪২৪৪ গোলাপগঞ্জে কুশিয়ারায় ভাসছে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ দিনমজুর ও শ্রমজীবীদের মাস্ক, সাবান ও হ্যান্ড স্যানেটাইজার দিলেন জহিরুল ইসলাম স্পেনে লাগামহীন হয়ে উঠছে প্রাণঘাতী করোনা, ২৪ ঘন্টায় ৯৫০ জনের প্রাণহানি বড়লেখায় সরকারি গুদামের ৩২ বস্তা চাল উদ্ধার, আটক ১ সুনামগঞ্জে ডাক্তারদের পিপিই দিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী

বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ছাড়িয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে ইতালিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭৯৩ জনের মৃত্যুর পর গোটা বিশ্বের কোভিড-১৯ রোগে মৃত্যুর সংখ্যা এখন ১৩ হাজার ছুঁই ছুঁই। গোটা বিশ্বে এই রোগে আক্রান্তের ঘটনাও ৩ লাখের কাছাকাছি। চীনে প্রাদুর্ভাব শুরু হলেও বর্তমানে করোনা মহামারিতে বিপর্যস্ত ইউরোপ।
মৃত্যুর ঘটনায় চীনকে আগেই ছাড়িয়ে গেছে ইতালি। দেশটিতে এখন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ৪ হাজার ৮২৫ জন। স্পেনেও গত ১৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে ইরানে একদিনে মারা গেছেন ১২৩ জন। যুক্তরাষ্ট্রে এই সংখ্যাটা ২৬ ও যুক্তরাজ্যে ৩০। বেলজিয়ামে মৃত্যু ৩০ জনের।
সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ১২ হাজার ৭৭৭ জনের। এছাড়া বিশ্বব্যাপী এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এখন ২ লাখ ৯৭ হাজার ৫৩৮। তবে আক্রান্ত প্রায় ৩ লাখ মানুষের মধ্যে ৯৪ হাজার ৫৮৪ জন সুস্থ হয়েছেন। এর মধ্যে চীনের ৭১ হাজার ৭৪০ জন।
করোনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ইতালিতে। প্রায় পাঁচ হাজার মৃত্যুর সঙঙ্গে দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩ হাজার ৫৭৮ জন। এরপর চীনে মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২৫৫ জনের। দেশটিতে আক্রান্তের ঘটনা ৮১ হাজার ৮ জন। এরপর স্পেনে মৃত্যু ১ হাজার ৩৭৮ এবং ইরানে ১ হাজার ৫৫৬।
উল্লিখিত চারটি দেশের পর সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ফ্রান্সে—৪৫০ জন। এরপর যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্রে ২৮২, যুক্তরাজ্যে ১৮০, নেদারল্যান্ডসে ১৩৬ এবং দক্ষিণ কোরিয়ায় ১০২ জন। যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ২২ হাজার ১৩২টি। এছাড়া যুক্তরাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৯৪ জন।

Advertisement

Advertisement
সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

এ জাতীয় আরও সংবাদ 👇


Facebook Page


Scroll Up