সুনামগঞ্জে ‘মুজিববর্ষে হাওর উৎসব’, ২৮ মার্চ যোগ দিবেন মহামান্য রাষ্ট্রপতি

আনিসুল হক মুন, শাল্লা :: ‘মুবিববর্ষে হাওর উৎসব ২০২০’ -এ যোগ দিতে ২৮ মার্চ সুনামগঞ্জের শাল্লায় আসছেন মহামান্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অ্যাডভোকেট। দু’দিন ব্যাপি এ উৎসব ২৮ ও ২৯ মার্চ শাল্লা উপজেলার শাল্লা গ্রামে অনুষ্ঠিত হবে।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন শাল্লা সমিতি ঢাকা’র সভাপতি ও উদযাপন কমিটির কোষাধ্যক্ষ রুবেল শঙ্কর।

আয়োজকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, দুদিনব্যাপি এই উৎসবটি হবে স্মরণকালে বৃহত্তর হাওর এলাকার বৃহত্তম উৎসব। থাকবে নানা বর্ণিল আয়োজন। উদ্বোধনী ও সমাপনী বিশেষ অনুষ্ঠান ছাড়াও মুজিববর্ষ উদযাপন আয়োজনে থাকবে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, সাধারণ জ্ঞান প্রতিযোগিতা, বৃক্ষরোপন, ঐতিহাসিক আলোকচিত্র প্রদর্শনী ও ফানুস উড্ডয়ন।

উৎসবে আরও থাকবে গ্রামীণ বারোয়ারি মেলা, কৃষি ও গৃহস্থালী উপকরণ প্রদর্শনী, গ্রামীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা, পুতুল নাচ ইত্যাদি।।

উৎসবে দুদিনব্যাপী সাংস্কৃতিক আয়োজনে স্থানীয় লোক শিল্পীদের পাশাপাশি অংশগ্রহণ করবেন জাতীয় পর্যায়ের নন্দিত সিনেমা-টেলিভিশন অভিনয় শিল্পী এবং সংগীত শিল্পীগণ।

এছাড়াও থাকবে রক্তের গ্রুপ নির্ধারণ সহ স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসুচি। পাশাপাশি মেলায় আগত দর্শনার্থীদের জন্য প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থাও থাকবে।

উৎসবে আগত পর্যটকদের জন্য নদী ভ্রমণ, মাছ ধরা বিলের তীরে তাবুবাস ক্যাম্পফায়ারের মত বিভিন্ন রোমাঞ্চকর আয়োজন করা হবে। সাইক্লিস্ট ও বাইকারদের দুটি দল ঢাকা থেকে র‌্যালী করে সামিল হবেন এই আয়োজনে।

এ ব্যাপারে শাল্লা সমিতি ঢাকা’র সভাপতি ও উদযাপন কমিটির কোষাধ্যক্ষ রুবেল শঙ্কর বলেন ‘ মুজিববর্ষে অনেক অনুষ্ঠান আয়োজিত হচ্ছে কিন্তু বৃহত্তর হাওর অঞ্চলে উল্লেখযোগ্য কোন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা আছে বলে আমরা শুনিনি। আয়োজনটি উৎসবটি শাল্লায় হলেও মুলত বৃহত্তর হাওরবাসীর কথা চিন্তা করেই এটির পরিকল্পনা করা হয়েছে এবং আয়োজনের অনেকাংশ জুড়েই থাকবে হাওরের মাটি ওমানুষের কৃষি-পরিবেশ-ঐতিহ্য এবং সমৃদ্ধ সংস্কৃতির সমন্বিত উপস্থাপন। হাওরের মানুষ নিজেদের মত করে বর্ণাঢ্য আয়োজনে সামিল হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপনে।

আমাদের মহামান্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ২৮ মার্চ অনুষ্ঠিত উৎসবে যোগ দেবেন বলে রুবেল শঙ্কর জানান। তিনি জানান, হাওর অঞ্চলের দুইজন সম্মানিত মন্ত্রী এবং সুনামগঞ্জ জেলার সংসদ সদস্যদের পাশাপাশি পার্শ্ববর্তী এলাকার সংসদ সদস্য, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সামাজিক সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের উপস্থিতি মুজিববর্ষে হাওর উৎসবকে আলোকিত ও সাফল্যমন্ডিত করে তুলবে।

হাওর উৎসবকে সফল করতে সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন উদযাপন কমিটির কোষাধ্যক্ষ রুবেল শংকর।

‘মুজিববর্ষে হাওর উৎসব’ -কে কেন্দ্র করে গতকাল মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাতত সাড়ে দশটায় বঙ্গভবনে মহামান্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ-এর সভাপতিত্বে এক বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি, রেবেকা মোমিন এমপি, ড. জয়া সেনগুপ্তা এমপি, আব্দুল মজিদ খান এমপি, শামীমা শাহরিয়ার এমপি, পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ্ এমপি, মজিবুল হক এমপি, আবু জাহির এমপি, মুহিবুর রহমান মানিক এমপি, গাজী শাহনওয়াজ এমপি, বদরদ্দোজা মোহাম্মদ ফরহাদ হোসেন (সংগ্রাম) এমপি, মো. আফজাল হোসেন এমপি, রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও উপস্থিত ছিলেন অধ্যক্ষ মো. আব্দুল হক, শাল্লা সমিতি ঢাকার উপদেষ্টা ডা. আবুল কালাম চৌধুরী, শাল্লা সমিতি ঢাকা’র সভাপতি রুবেল শঙ্কর বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক মো. আল-আমিন।

মহামান্য রাষ্ট্রপতির পরামর্শে মুজিববর্ষ উদযাপনে হাওর অঞ্চলের সবার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে উৎসব আয়োজনের লক্ষ্যে সর্বসম্মতিক্রমে ‘মুজিববর্ষে হাওর উৎসব ২০২০ উদযাপন কমিটি’ গঠন করা হয়।

কমিটিতে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপিকে আহ্বায়ক করে শাল্লা সমিতি ঢাকার উপদেষ্টা ডা. আবুল কালাম চৌধুরীকে সদস্য সচিব মনোনীত করা হয়।

এছাড়া যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয় ড. জয়া সেনগুপ্তা এমপি, মো. আব্দুল মজিদ খান এমপি, রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপিকে।

হাওর এলাকার সকল সংসদ সদস্যবৃন্দ ছাড়াও অতিরিক্ত আইজিপি সিআইডি প্রধান চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন, শাল্লা ও আজমিরীগঞ্জের উপজেলা চেয়ারম্যানকে সদস্য মনোনীত করা হয়।

শাল্লা সমিতি ঢাকার সভাপতি রুবেল শঙ্করকে কোষাধ্যক্ষের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি এই কমিটির প্রথম সভায় পুর্ণাঙ্গ কমিটি এবং উপ-কমিটিসমূহ গঠন করা হবে সংশ্লিষ্টরা জানান।

মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ আগামী ২৮ মার্চ শাল্লা উপজেলার শাল্লা গ্রামে উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকতে সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।

উল্লেখ্য, শাল্লা সমিতি ঢাকা’র উদ্যোগ ও পরিকল্পনায় ৫-৬ মার্চ শাল্লা সমিতি ঢাকা’র আয়োজনে এই উৎসবটি অনুষ্ঠানের প্রস্ততি চলছিল। মহামান্য রাষ্ট্রপতির উপস্থিতি নিশ্চিত করার জন্য তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে। সভার সিদ্ধান্ত মেতাবেক গঠিত কমিটি’র আয়োজনে উৎসবে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করবে শাল্লা সমিতি ঢাকা।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

এ জাতীয় আরও সংবাদ :




Facebook Page


Scroll Up